বাসায় থেকেও ফিট থাকবেন?

বাসায় থেকেও যেভাবে ফিট থাকবেন? নিজেকে ফিট রাখতে আমরা নানারকম প্রচেষ্টা করি। যেমনঃ নিয়ম মেনে খাবার খাওয়া, সকাল-বিকাল দৌড়ানো, জিমে গিয়ে ঘাম ঝরানো আরো কত কী! সুস্থ থাকতে যেকোনো মূল্যেই নিজেকে ফিট থাকার লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে। কিন্তু এসময়ের কথা ভিন্ন।

বর্তমান অবস্থা যুদ্ধকালীন পরিস্থিতির মতোই বলতে গেলে। ঘরের বাইরে পা রাখতে গেলেও অজানা আর অদৃশ্য শত্রু করোনাভাইরাসের ভয়ে কাঁপছে বুক। জিমে যাওয়া কিংবা সকাল-বিকাল দৌড়ানো এখন আর মোটেও নিরাপদ নয়।

ঘরে একপ্রকার বন্দী থেকেই কাটাতে হচ্ছে সময়। সেইসঙ্গে মানসিক নানা উদ্বেগ আর চাপ তো আছেই। এমন অবস্থায় নিজেকে ফিট রাখতে কী করবেন? জেনে আজকের প্রতিবেদনে নিন-

প্রথম ধাপ হচ্ছে, একেবারেই নিরাশ হওয়া চলবে না। দুই, সহজ রাস্তা খুঁজে বের করতে হবে। আপনি বাড়ির ছাদটা ব্যবহার করতে পারেন। বিশেষ করে ভোরবেলা আর সন্ধ্যার পর। সেখানেই জগিং করুন, হাঁটুন। ঠিক কত পা হাঁটলেন তা বোঝার জন্য অ্যাপ ডাউনলোড করে নিন ফোনে।

প্রতিদিন মোটামুটি হাজার দশেক পদক্ষেপ হচ্ছে কিনা দেখে নিন। ঘণ্টা দেড়েক দ্রুত হাঁটলেই তা হয়ে যাওয়ার কথা। ছাদে যাওয়া সম্ভব না হলে বারান্দা বা ড্রয়িং রুমেই হাঁটুন। কয়েক দিনেই অভ্যাস হয়ে যাবে।

কিছু ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ়ও করা যায়। যেমন জাম্পিং জ্যাক, বারপিস, ফ্রি স্কোয়াটস, সাইড রানিং, মাউন্টেন ক্লাইম্বিং- ৫০টি করে পাঁচটি সেট করলেই গা দিয়ে ঘাম ঝরবে।

এমন কি স্কিপিংও করতে পারেন, নানা ধরনের প্ল্যাঙ্ক। তবে হাঁটুতে ব্যথা থাকলে অবশ্যই গার্ড পরে ব্যায়াম করুন। আর আপনার হাতের কাছে রেজিস্টেন্স ব্যান্ড থাকলে তো কথাই নেই, পুরোদস্তুর ওয়েট ট্রেনিং করতে পারবেন বাড়িতে বসে। তবে সেক্ষেত্রে ট্রেনারের পরামর্শ নেবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *